একসাথে আরও শক্তিশালী- এই স্বামী-স্ত্রী জুটি ফ্লিপকার্ট সেলার হিসেবে তাদের বৃহত্তম মাইলস্টোন অর্জন করেছে!

Read this article in हिन्दी | English | தமிழ் | ಕನ್ನಡ | ગુજરાતી | मराठी

#সেল্ফমেড ফ্লিপকার্ট সেলার রীতেশ এবং তার স্ত্রী তাদের আর্থিক বৃদ্ধিকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য উদ্যোক্তা এবং বিসনেস পার্টনার হিসেবে যাত্রা শুরু করে। অফলাইনে বিক্রয় করে, তাদের দেখা স্বপ্ন অনুযায়ী তাদের বিসনেসকে ততটা দ্রুত বৃদ্ধি করতে পারছিলো না। দ্রুত, তারা সুবিধাগুলি এবং ই-কমার্সের স্বাচ্ছন্দ্যকে আলিঙ্গণ করতে পারে, এবং তারপর থেকে তারা আর পিছনে ফিরে তাকায়নি! 2020-এর বিগ বিলিয়ন ডেস চলাকালীন, এই প্রগতিশীল জুটি তাদের সেলস-এর সর্বাধিক সীমা দেখেছিল! তাদের অনুপ্রেরণামূলক গল্প পড়ুন এবং দেখুন যে তারা কিভাবে ফ্লিপকার্টে তাদের সত্যিকারের আহ্বান খুঁজে পেয়েছিল।

Flipkart sellers

এই গল্পতে: কিভাবে এই স্বামী-স্ত্রী জুটি বিসনেস পার্টনার হয়েছিল এবং #সেল্ফমেড ফ্লিপকার্ট সেলার হিসেবে তাদের আহ্বানকে খুঁজে পেয়েছিল।


মার নাম রীতেশ কুমার শর্মা। আমি একটি আর্মি ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আসছি- আমার বাবা আর্মড ফোর্সে ছিলেন- এবং আমার পরিবারে আমিই প্রথম বিসনেস শুরু করেছিলাম। আমি এলআর রিটেইল নামক একটি কোম্পানী চালাই এবং ফ্লিপকার্টে আমাদের ব্র্যান্ডটি হল মোক্ষী। আমি 2016-এর জানুয়ারী থেকেএকজন ফ্লিপকার্ট সেলার।

একজন উদ্যোক্তা হওয়ার আগে, আমি সার্ভিস সেক্টরে কাজ করতাম, কিন্তু শীঘ্রই আমি বুঝতে পেরেছিলাম যে আমি আমার নিজের বিসনেস শুরু করতে চাই। আমি ইতিমধ্যে জানতাম আমার বিসনেস পার্টনার কে হবে- আমার স্ত্রী, যে এখন এলআর রিটেইল-এর মালিক।

আমার স্ত্রী এবং আমি অফলাইনে বিক্রয় করে আমাদের বিসনেস শুরু করেছিলাম এবং এর থেকে অনেক কিছু শিখেছিলাম। একবার যখন আমরা বুঝতে পেরেছিলামযে যদি আমরা অনলাইনে বিক্রী করি তাহলে আমরা আরও বেশি গ্রাহকদের কাছে পৌঁছাতে পারবো এবং আমাদের বিসনেস বাড়াতে পারবো, তখনই আমরা রেজিস্টার করেছিলাম #সেল্ফমেড ফ্লিপকার্ট সেলার হিসেবে। আমরা জানতাম যে আমরা সঠিক জিনিস বেছে নিয়েছি যখন সেই কাস্টমার বেসকে আমরা দেখেছিলাম যাদের কাছে আমরা বিক্রী করতাম। আমরা অনবোর্ডিং করার পর, প্রতিদিন আমরা 10-20টি করে অর্ডার পেতে শুরু করলাম এবং তাড়াতাড়ি এই সংখ্যাটি উপরের দিকে উঠতে থাকলো। আমরা 35-40টি অর্ডার পেতে শুরু করেছিলাম এবং আজকে আমরা অন্তত একদিনে 100টি অর্ডার দেখতে পাই।

এখনও পর্যন্ত অভিজ্ঞতাটি দারুন। ফ্লিপকার্ট গ্রাহকদের কাছ থেকে আসা অর্ডারগুলিতেই এখন আমাদের সমস্ত মনোযোগ এবং প্রচেষ্টা কেন্দ্রীভূত হয়েছে এবং তার পর থেকে আমরা আর পিছনে ফিরে তাকাইনি। ফ্লিপকার্টের সাথে হওয়া পার্টনারশিপের পর থেকে আমাদের বিসনেসের উপর প্রভাব ছিল অভাবনীয়!

বিগ বিলিয়ন ডেস সেল এর আগে এই বছরে, আমরা সবকিছু বশদে পরিকল্পনা করে নিয়েছিলাম- আমাদের গ্রাহকদের জন্য অফারগুলি, যে প্রোডাক্টগুলির তালিকা তৈরী করতে হবে সেগুলি, প্যাকেজিং মেটিরিয়ালগুলি সংগ্রহ করা, ওয়্যারহাউস স্পেস ম্যানেজমেন্ট এবং গ্রাহকদের চাহিদার দিকে খেয়াল রাখা। ওয়্যারহাউস স্পেস, লজিস্টিকস-এর বিষয়ে ফ্লিপকার্টের পক্ষ থেকে হওয়া আদানপ্রদান, এবং ফ্লিপকার্ট সেলার টিমের পক্ষ থেকে আসা সমস্ত সহায়তা আমাদের সত্যিই কাজে এসেছিল।

এই প্রচেষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে, আমরা আমাদের লক্ষ্য পূরণে সফল হয়েছিলাম। এই বছরের সেল চলাকালীন প্রতিদিন আমরা প্রায় 70000 প্রোডাক্টগুলি বিক্রয় করেছিলাম।

এ বছরের শুরুর দিকে, কোভিড-19 মহামারী লকডাউনের সময়, সবকিছু বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। আমরা ভেবেছিলাম যে আমরা আর কখনই আমাদের বিসনেসের ট্র্যাকে ফিরে আসতে পারবো না। কিন্তু তখনই আমরা ফ্লিপকার্টের পক্ষ থেকে একটি কল পেয়েছিলাম এবং আমাদের বলা হয়েছিল যে আমরা আবার অনলাইনে বিক্রয় করা শুরু করতে পারি। যখন স্যানিটাইজেশনের কথা আসে তখন আমরা সরকারের সমস্ত নির্দেশিকা অনুসরণ করেছিলাম এবং আমারা আমাদের কর্মচারীদের সর্বোত্তম খেয়াল রেখেছিলাম।

আমাদের কর্মচারীরা বিসনেস আবার চালু করার জন্য প্রতিটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল। ফ্লিপকার্টে থাকা আমাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজারও নিয়মিতভাবে আমাদের সাথে যোগাযোগ রেখেছিলেন এবং তার নির্দেশ অনুসারে আমরা আমাদের বিসনেস অপারেশন পরিবর্তন করেছিলাম।

ফ্লিপকার্ট আমাদের মতো সেলারদের জন্য খুবই সহায়ক। অনবোর্ডিং করা খুবই সহজ এবং তাদের আদানপ্রদান স্বচ্ছ। প্রোডাক্টগুলি তালিকাভুক্ত করার আগে সবকিছু আলোচনা করে নেওয়া হয় এবং আমি লক্ষ্য করেছি যে আমাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজারের নির্দেশাবলী অনুসরণ করা আমাদের সাফল্যকে সুনিশ্চিত করেছিলো!

পল্লবী সুধাকরের দেওয়া অতিরিক্ত ইনপুটগুলি সহ জিষ্ণু মুরলীকে যেভাবে বলা হয়েছে।


এই গল্পটি ভালো লেগেছে? এই মজা, ইন্টারঅ্যাক্টিভ ম্যাপের মধ্যে দিয়ে নেভিগেট করুন সারা ভারত থেকে ফ্লিপকার্ট সেলারদের কাছ থেকে আরও বেশি গল্পগুলি শোনার জন্য!

Enjoy shopping on Flipkart

0 Shares
Share
Tweet
Share
WhatsApp
Telegram